আইন শৃংখলা

আমদানি বন্ধ

বাজারে নেই রোটা ভাইরাসের ভ্যাকসিন

শিশুদের ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার জন্য দায়ী বলে চিহ্নিত সংক্রামক ভাইরাস ‘রোটা’র ভ্যাকসিন পাওয়া যাচ্ছে না বাজারে। নানান জটিলতায় আমদানি বন্ধের কারণে এ সংকট বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। আর এ কারণে উদ্বেগ বাড়ছে আক্রান্ত শিশুর বাবা-মার।

রাজধানীর বাসিন্দা এক চিকিৎসক তার একমাত্র সন্তানের জন্য রোটা ভাইরাসের ভ্যাকসিন খুঁজতে চিকিৎসক হয়েও ঘুরেছেন এক প্রতিষ্ঠান থেকে অন্য প্রতিষ্ঠানে। একই কষ্ট আয়েক মায়েরও। আক্রান্ত ছেলেকে দেয়ার জন্য ছয় মাসের চেষ্টায়ও জোগাড় করতে পারেননি জরুরি এ ভ্যাকসিন।

চিকিৎসকরা জানান, শিশু হাসপাতালের সাত নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি ২৩ শিশুর মধ্যে চারজনই আক্রান্ত রোটা ভাইরাসে। এখন দেখা দিয়েছে নানান জটিলতা। পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের রোটা ভাইরাসে আক্রান্তের হার বেশি। আর দুই বছর বয়সীরা থাকে ঝুঁকিতে।

আন্তর্জাতিক উদরাময় রোগ গবেষণা কেন্দ্র আইসিডিডিআর,বিসহ বেশকিছু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আমদানি বন্ধের কারণে কয়েক মাস ধরেই রোটার ভ্যাকসিন বাজারে পাওয়া যাচ্ছে না।

গবেষণা বলছে, ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের ৫৫ শতাংশই রোটা ভাইরাস সংক্রমণে গুরুতর অসুস্থ হয়। পরে নানান জটিলতায় তারা মারাও যেতে পারে। ৬০ শতাংশ শিশুর ডায়রিয়া হচ্ছে রোটা ভাইরাসের কারণে।

মন্তব্য