সাহিত্য

আমরা কেমন মানুষ !!

 

জীবনের বাস্তবতা বড়ই অদ্ভুত
কখনো বা নির্মম সত্যের কষাঘাতে
মুখ থুবড়ে পড়ে চলমান গতি।
কখনো কখনো মিথ্যার অন্তরালে হারিয়ে যায়
নির্বাক নিশ্চল চেতনার উন্মেষ।

জেগে ওঠার চরম ইচ্ছাটুকু অন্ধকারে ডুবে মরে
ব্যথা সয়ে যাওয়া হৃদয় কঠিন পাথরে পরিণত হয়
নিঃশ্বাস চেপে চেপে জখম বাড়ায় দেহের অভ্যন্তরে।
প্রতিটি দিন আসে রাত্রির জটিলতা কাটিয়ে
সুবাসিত ফুল নয়, একগুচ্ছ হেমলক হাতে যেন
বিষের দহন ছড়িয়ে সম্মুখ পানে,

প্রৌঢ়তায় নিজেকে হারিয়ে বিষাদঘন যুবতী সকাল।
শূন্যতায় হাবুডুবু খায় গৎবাঁধা সময়গুলো
আত্মঘাতী ব্যাকুলতায় যেখানে চলে মৃত্যুর মিছিল
ভীষণ অস্থিরতায় অনিশ্চিত ভবিষ্যত !
এরই নাম কি তবে জীবন !

এভাবে আর কত কাল শুনতে হবে পাতা ঝরার গান
কত আর সভ্যতার অন্তরালে দেখতে হবে অসভ্যতার নির্মম চিত্র!
অন্ধকারকে দূরে সরাতে নয়ন জলে সলতে জ্বালাই
শেষ দেখার অজুহাতে মানবতার নিষ্ঠুর বলিদানের ,
তবুও হয় না শেষ বিভৎসতার ।

কেবল সঙ্গমের লালসা মেটাতেই নয় সব বিবস্ত্র নারী দেহ
ক্রোধ কিংবা পরশ্রীকাতরতার জন্যই নয় তাবৎ হত্যাযজ্ঞ
এসবই মানবতার বিকার, পৃথিবী ধ্বংসের সূচনাবার্তা যেন।

মন্তব্য