শিক্ষা

সকালের সময় 'কোভিড-১৯' আপডেট
# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ 297,083 182,875 3,983
বিশ্ব 23,728,063 16,193,743 814,657

মুজিববর্ষকে সামনে রেখে ঢাবি শিক্ষার্থীদের বেতনাদি অনলাইনে গ্রহণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে : ঢাবি উপাচার্য

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ফি ও বেতন প্রথমবারের মতো অনলাইনে গ্রহণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এছাড়া, প্রতিমাসের প্রথম সপ্তাহকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ক্লিন ক্যাম্পাস উইক’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। মুজিববর্ষকে সামনে রেখে বিভিন্ন কল্যাণধর্মী কাজের অংশ হিসেবে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আজ ২৭ আগস্ট ২০১৯ মঙ্গলবার ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র মিলনায়তনে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আলোচনা সভায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো: কামাল উদ্দীন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম, সিনেট সদস্য ও ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক শোভন, ডাকসু’র ভিপি মো. নুরুল হক, মুক্তিযোদ্ধা প্রাতিষ্ঠানিক ইউনিট কমান্ডের প্রতিনিধি অধ্যাপক আবু জাফর মোহাম্মদ সালেহ, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. আমিরুল ইসলাম সহ বঙ্গবন্ধু সমাজকল্যাণ পরিষদ, কর্মচারী সমিতি, কারিগরি কর্মচারী সমিতি ও চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো: এনামউজ্জামান অনুষ্ঠান স ালন করেন।  

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধে পরাজয় মেনে নিতে পারেনি বলেই স্বাধীনতা বিরোধী কুচক্রী মহল জাতির জনককে সপরিবারে হত্যা করে প্রতিশোধ নিতে চেয়েছিল। ইতিহাস থেকে তাঁর নাম মুছে দিতে চেয়েছিল। তাদের সে ষড়যন্ত্র সফল হয়নি। শিশু-কিশোর-যুবক সহ সকল বয়সের মানুষের মাঝে আজ বঙ্গবন্ধুর জীবন- দর্শনের প্রভাব প্রবাহিত হচ্ছে। তাই জীবিত মুজিবের চেয়েও মৃত মুজিব এখন অনেক বেশী শক্তিশালী। শিশুরা আজ বঙ্গবন্ধুর ছবি, ৭ মার্চের ভাষণের ছবি, তাঁর দৈনন্দিন জীবনের ছবি আঁকছে। গ্রাম, গঞ্জ, পাড়া, মহল্লা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তাঁকে নিয়ে আলোচনা চলছে। ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। বঙ্গবন্ধুর জীবন-দর্শন ভিত্তিক কর্মনীতি গ্রহণ ও বাস্তবায়নের ওপর গুরুত্বারোপ করে উপাচার্য বলেন, তাহলেই তাঁর প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করা হবে।

 

মন্তব্য