জাতীয়

সকালের সময় 'কোভিড-১৯' আপডেট
# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ 168645 78102 2151
বিশ্ব 11,763,959 6,758,048 541,228

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বিজিএমইএ দপ্তরে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

 

গতকাল ২৭ আগষ্ট ২০১৯ তারিখে বিজিএমইএ দপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে যথাযোগ্য মর্যাদায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিজিএমইএ সভাপতি ড. রুবানা হক এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অংশ গ্রহন করেন বিজিএমইএ’র অফিস বেয়ারার্স, পরিচালকবৃন্দ ও সাধারন সদস্যগন। সভায় জাতির পিতার কর্ম ও জীবন এবং বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে তার অনন্যসাধারন নেতৃত্ব ও ভ’মিকা পালন এবং জনগনের ক্ষমতায়ন, মানবাধিকারের সুরক্ষা, অর্থনৈতিক ও সামাজিক মুক্তির বিষয়ে তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বদান বিষয়ে আলোচনা হয়। সভায় কিউবার মহান নেতা ফিদেল কাস্ত্রো এর বিখ্যাত উক্তি ‘আমি হিমালয় দেখিনি, কিন্তু বঙ্গবন্ধুকে দেখেছি। তাই, হিমালয় দেখার সাধ নেই’ উদ্ধৃত করা হয়।

বিজিএমইএ সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধু ১৯৫৪ সালে যুক্তফন্ট্রের হয়ে এসেম্বলীতে এলে তাকে ১৯৫৫ সালে শিল্প ও বানিজ্যমন্ত্রী ঘোষনা করা হয়। ১৯৫৭ সালে মন্ত্রী থাকা অবস্থায় তিনি ইষ্ট পাকিস্তান’স স্মল এন্ড কটেজ ইন্ডাষ্ট্রীজ কর্পোরেশন নামক বিল উত্থাপন করেছিলেন। তিনি অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থনীতির কথাও বলেছিলেন। আজ আমরা বিশ্বায়নের যুগে, চতুর্থ শিল্প বিপ্লব এর যুগে জাতির জনকের সেই আদর্শকেই  হৃদয়ে ধারন করার চেষ্টা করছি। সরকার প্রথমবারের মতো ২০২০ সাল থেকে বঙ্গবন্ধু শিল্প পূরষ্কার দেয়ার যে ঘোষনা দিয়েছে, সেটিকে বিজিএমইএ সভাপতি সাধুবাদ জানান। তিনি বলেন, ২০২০ সাল বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী, ২০২১ সাল বাংলাদেশের সূবর্নজয়ন্তী এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭৫ বছরে পদাপর্ণ করবেন ২০২২ সালে। এই পরপর ৩টি বছর আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন। পরিশেষে ড. রূবানা হক পোশাক শিল্পের পক্ষ থেকে ২০২০ সালে বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী  উপলক্ষে পোশাকের লেবেল এর সাথে বঙ্গবন্ধু বিষয়ে একটি ছোট ভিডিও ক্লিপ সংযুক্ত করার প্রস্তাবনা দিয়ে বলেন যে,  বিষয়টি নিয়ে তিনি প্রতিটি ক্রেতার সাথে কথা বলতে তিনি একান্তভাবে আগ্রহী।

বিজিএমইএ এর সহ-সভাপতি জনাব এস এম মান্নান (কচি) তার বক্তব্যে বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু পা’য়ে হেটে, নৌকায় চড়ে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত এলাকাগুলোতে গিয়েছেন। জনগনের দূঃখকষ্টের কথা শুনে তাদেরকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার নেতৃত্ব দিয়েছেন। স্বাধীনতার জন্য আন্দোলন করতে যেয়ে অনেক মামলা হয়রানীর শিকার হয়েছেন, জীবনের অধিকাংশ সময়ে জেল খেটেছেন। কিন্তু আপোষ করেননি। ক্ষমতা ছেড়েছেন কিন্তু ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করেননি।

বিজিএমইএ এর সহ-সভাপতি (অর্থ) জনাব এম এ রহিম (ফিরোজ) বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করেছিলেন বলেই আজ এদেশে এতো উদ্যোক্তার জন্ম  হয়েছে। তিনি বেশিরভাগ সময়ে জেলে থাকার জন্য নিজের সন্তানদের বেড়ে উঠাও দেখতে পারেননি। জাতির জনক স্বাধীনতার জন্য যে আত্মত্যাগ করেছেন, তা আর কখনই কেউ করতে পারেবে না।

বিজিএমইএ এর পরিচালক জনাব আসিফ ইব্রাহিম বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করেছিলেন বলেই বাংলাদেশ আজ বিশ্বের দরবারের দ্বিতীয় বৃহত্তম পোশাক রপ্তানিকারক দেশ হিসেবে স্বীকৃতি অর্জন করতে সমর্থ হয়েছে। তলাবিহীন ঝুঁড়ি থেকে বাংলাদেশ আজ মধ্যম আয়ের দেশের কাতারে এসেছে। তিনি বলেন, যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, ততোদিন জাতি বঙ্গবন্ধুকে হৃদয়ে ধারন করবে।

বিজিএমইএ এর সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি জনাব ফারুক হাসান জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে প্রথমবারের মতো বিজিএমইএ পক্ষ থেকে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল আয়োজনের উদ্যোগ নেয়ার জন্য বিজিএমইএ সভাপতিকে ধন্যবাদ জানান।
আলোচনা সভাটি স ালনা করেন বিজিএমইএ পরিচালক জনাব মাসুদ কাদের মনা।

 

মন্তব্য