আন্তর্জাতিক

সকালের সময় 'কোভিড-১৯' আপডেট
# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ 186894 98317 2391
বিশ্ব 11,763,959 6,758,048 541,228

পরমাণু যুদ্ধের হুমকির মধ্যেই পাকিস্তানের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা

 

কাশ্মীর ইস্যুকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী দুই দেশ ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে চরম উত্তেজনাকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ইতিমধ্যে সীমান্তে দু দেশের গুলি বিনিময়ে বেশ কয়েকজন পাক-ভারতীয় সেনা ও বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে। এছাড়া দুই দেশ যে কোনো সময় বড় ধরনের যুদ্ধে জড়িয়ে পড়তে পারে বলেও আশঙ্কা ব্যক্ত করেছেন আন্তর্জাতিক সামরিক বিশেষজ্ঞরা। এ অবস্থায় আজ বৃহস্পতিবার নতুন ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাচ্ছে ইসলামাবাদ।

মাত্র সপ্তাহ খানেক আগেই ভারতের সঙ্গে পরমাণু যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা ব্যক্ত করেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে। এরপর গত সোমবার নয়াদিল্লির বিরুদ্ধে ফের একই ধরনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। এছাড়া দুই দেশের বিভিন্ন সামরিক ও প্রশাসনিক কর্মকর্তারাও পরষ্পরের বিরুদ্ধে নানা হুমকি ধামকি দিচ্ছেন।

এরই মধ্যে সোমবার নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার কথা ভারতকে জানিয়েছে পাকিস্তান। কারণ ২০০৫ সালে স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী দুই দেশকেই এ জাতীয় পরীক্ষার তিন দিন আগেই বিষয়টা জানাতে হয়।

তবে পাকিস্তান আজ কি ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাচ্ছে তা স্পষ্ট নয়। তবে ভারতের এক সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, সম্ভবত গাজনভি ক্ষেপণাস্ত্রেরর পরীক্ষা করতে চলেছে পাকিস্তান, যার রেঞ্জ ৩০০ কিলোমিটার। বালুচিস্তানের সোনমিয়ানি ফ্লাইট টেস্ট রেঞ্জের ৫৯ কমান্ড পোস্ট থেকে নিক্ষেপ করা হবে মিসাইলটি।

এই মিসাইল পরীক্ষার জন্যই আগামী তিনদিনের জন্য (বুধবার থেকে শনিবার) করাচি যাওয়ার তিনটি আকাশপথ বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান। এই পরীক্ষা ক্ষেত্রের আশেপাশের জলপথেও জারি হয়েছে রেড অ্যালার্ট। ফলে ওইসব জলসীমায় জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

গজনভি হল পাকিস্তানের একটি স্বল্প মাত্রার ক্ষেপণাস্ত্র মিসাইল। গজনভি ছাড়াও পাকিস্তানের শাহিন ও গৌরি নামেও আরো দুটি স্বল্পমাত্রার ক্ষেপণাস্ত্র আছে।

পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে অক্টোবর বা নভেম্বর নাগাদ বড় ধরনের যুদ্ধ শুরু হতে পারে বলে বুধবার এক বিবৃতিতে উল্লেখ করেছিলেন পাকিস্তানের রেলমন্ত্রী শেখ রসিদ আহমেদ। এর আগে কাশ্মীর সমস্যার যদি সমাধান না হয় তাহলে বিষয়টা পারমানবিক যুদ্ধ পর্যন্ত গড়াতে পারে বলে আশঙ্কা ব্যক্ত করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও।

প্রসঙ্গত, স্বাধীনতার পর থেকে এখন পর্যন্ত মোট তিনবার যুদ্ধ করেছে পাকিস্তান ও ভারত। ১৯৬৫ ও ১৯৭১ সাল ছাড়াও ১৯৯৯তে কারগিল যুদ্ধে লিপ্ত হয় দুই দেশ। তবে এসব যুদ্ধের একটিতেও জয় পায়নি পাকিস্তান। তবে এবারে যদি যুদ্ধ হয়, সেক্ষেত্রে ফলাফল অন্যরকম হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন রেলমন্ত্রী রসিদ।

সূত্র: কলকাতা টুয়েন্টি ফোর

মন্তব্য