আন্তর্জাতিক

বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হতে পারে ইমরান খানের দফতর

 


ভারত-শাসিত জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা তুলে নেওয়া এবং রাজ্যটিকে ভেঙে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করায় ভারতের সাথে বাকযুদ্ধ এখনও চলছে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের।

সম্প্রতি পাকিস্তানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ফাওয়াদ হোসেন টুইটারে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী (ইমরান খান) পাকিস্তানের আকাশপথ ভারতের জন্যে পুরোপুরি বন্ধের বিষয়টি বিবেচনা করছেন। ভারতীয় ব্যবসায়ীদের পাকিস্তানের ওপর দিয়ে আফগানিস্তানে যাওয়ার বাণিজ্য পথটিও পুরোপুরি বন্ধ করার পরামর্শ এসেছে মন্ত্রিপরিষদ বৈঠক থেকে। এসব সিদ্ধান্তের জন্যে আইনি প্রক্রিয়াগুলো বিবেচনায় রাখা হচ্ছে। মোদি শুরু করেছেন, আমরা শেষ করবো!’

তবে এবার কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে নয়। ইমরান আলোচনায় এলেন অন্য বিষয় নিয়ে।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দফতর এবার বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ২৮ আগস্ট ইসলামাবাদ ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি একটি নোটিশ জারি করেছে।

ওই নোটিশে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর দফতরের ৪১ লাখ টাকারও বেশি বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে। বিদ্যুৎ সরবরাহ সংস্থার দাবি, একাধিকবার নোটিশ পাঠানো হলেও প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে বিদ্যুতের বকেয়া টাকা পরিশোধ করা হয়নি।

বিদ্যুৎ দফতরের এক কর্মকর্তা বলেছেন, আবারও নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এবার বকেয়া না মেটানো হলে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হবে।

মন্তব্য