বিনোদন

এই হাহাকার মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কাটবে না: অমিত হাসান

 


ঢাকাই ছবির চিত্রনায়ক অমিত হাসান। নায়ক হিসেবে অভিনয় শুরু করলেও এখন খল নায়ক চরিত্রেই বেশি দেখা যায় তাকে। নানারকম চরিত্রে হাজির হয়ে দর্শক মুগ্ধ করতেন দারুণভাবে। ‘প্রেমের সমাধি’, ‘তুমি শুধু তুমি’, বাবা কেন চাকর’, ‘রঙিন উজান ভাটি’ ছবিগুলোতে অভিনয় করে দর্শকদের মনে জায়গা করে নেন।

আজ সোমবার এই নায়কের জন্মদিন। জন্মদিনে তিনি রয়েছেন কলকাতায়। নতুন একটি ছবির বিষয়ে কথা বলতে সেখানে অবস্থান করছেন। সঙ্গে রয়েছেন তার পরিবার। কাজের ফাঁকে পরিবারকে নিয়ে কিছুদিন অবকাশ যাপন করেই দেশে ফিরবেন এই নায়ক। জন্মদিন নিয়ে তেমন কোন পরিকল্পনা করা হয় না তার।

অমিত হাসান বলেন, আমার জন্মদিনে তেমন করে পার্টি করা হয় না। পরিবার পরিজন নিয়েই উপভোগ করি। তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সারপ্রাইজ দেয়। এটাই আমাকে আনন্দ দেয় অনেক। গতকাল থেকেই অনেকের শুভেচ্ছা পাচ্ছি। ভাল লাগছে।

তবে জন্মদিন এলে নিজের মাকে ভীষণ মিস করেন অমিত হাসান। তিনি বলেন, প্রতিটি জন্মদিনেই মাকে খুব মিস করি। এই হাহাকার মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কাটবে না। আমার মায়ের জন্য দোয়া চাই সবার কাছে।

১৯৬৮ সালের ৯ সেপ্টেম্বর টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানার অন্তর্গত বানিয়ারা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন অমিত হাসান। তার প্রকৃত নাম খন্দকার সাইফুর রহমান। ১৯৮৬ সালে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তিনি চলচ্চিত্রে আসেন। ১৯৯০ সালে মুক্তি পায় তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘চেতনা’। ছবিটি পরিচালনা করেন ছটকু আহমেদ। একক নায়ক হিসেবে তিনি প্রথম অভিনয় করেন মনোয়ার খোকনের ‘জ্যোতি’ চলচ্চিত্রে।

এরপর তিনি উপহার দিয়েছেন ‘প্রেমের সমাধি’, ‘শেষ ঠিকানা’, ‘জিদ্দী’, ‘বিদ্রোহী প্রেমিক’, ‘তুমি শুধু তুমি’, ‘বাবা কেন চাকর’, ‘রঙিন উজান ভাটি’, ‘ভালবাসার ঘর’র মতো জনপ্রিয় সব চলচ্চিত্রে।

মন্তব্য