সাহিত্য

আমি বীরাঙ্গনা বলছি

আমি বীরাঙ্গনা বলে কেউ নিলনা ঘরে তুলে
স্বাধীনতার সুখ পেলনা মন পেল যা শুধু  আমরন দুখ।
আমার কাছে স্বাধীনতা বুকের মাঝে পাথর চাপা 
স্বাধীনতা,স্বাধীনতা আমায় দিল মরন ব্যথা।।

মনে বড় আশা ছিল স্বাধীন হলে ঘর বাঁধিব 
কেউ নিল না ঘরনী করে 
পড়ে আছি একলা ঘরে
জন্ম ভূমির আকাশ-বাতাস
লাগে যেন শূণ্য মহাকাশ
পাখির কলতান লাগে যেন 
রুগ্ন মরুদ্যান।।

কেউ ডাকেনা মা বলে,
স্বামীর সোহাগ জুটল না রে 
কেউ নিলনা ঘরে তুলে
প্রিয় তমা আমায় বলে 
এই কি তবে স্বাধীনতা!!
চোখের পানি ঝরছে একা 
কি হবে এই স্বাধীনতা দিয়ে? যে আমারে বাঁচার নামে মারছে তিলে তিলে।। 

আমি বীরাঙ্গনা বলে স্বাধীনতা আমায় দিল সমাজ হীনা করে, 
চাই না আমি মরার  মতো বেঁচে থাকতে 
স্বাধীনতার শ্লীলতাহানি বয়ে বেড়াতে 
এই কি তবে স্বাধীনতা!!চোখের পানি ঝরছে একা 
পাইনা কারও পদধূলি, 
স্বাধীনতা আমায় গড়ে দিয়েছে বীরাঙ্গনা পল্লী।।

মন্তব্য