শিক্ষা

সাংবাদিকের ওপর হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকের উপর ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি। মঙ্গলবার সমিতির সভাপতি রায়হানুল ইসলাম আবির এবং সাধারণ সম্পাদক মাহদী আল মুহতাসিম এক বিবৃতিতে এই নিন্দা জানান।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, সোমবার দুপুরে বিশ^বিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার প্রাঙ্গণে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাসের অনুসারীরা। এসময় পেশাগত দায়িত্ব পালনকলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন স্টুডেন্ট জার্নালের  বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ও ঢাকা  বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সদস্য আনিসুর রহমান। তিনি ঘটনার ভিডিও ধারন করতে গেলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তার উপর হামলা চালায়। নিজের পরিচয় দেওয়ার পরও তাঁকে মারধর ও মোবাইল ফোন কেড়ে নেওয়া হয়। বিশ^বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতির সামনেই এ হামলা চালান তার অনুসারীরা। একই ঘটনায় বিজনেস বাংলাদেশের নুরুল আফসার মুন্না ও প্রতিদিনের সংবাদের রাহাতুল ইসলাম রাফিও মারধরের শিকার হয়েছেন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, মারধরের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন আনুষ্ঠানিকভাবে দুঃখপ্রকাশ করে এবং হামলাকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করার আশ্বাস প্রদান করেন। কিন্তু এখনো পর্যন্ত তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। উপরন্তু  দায়সারাভাবে বিবৃতি দিয়ে প্রকৃত ঘটনা আড়াল করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে গনমাধ্যমের স্বাধীনতা ও সাংবাদিকদের নিরাপত্তার জন্য হুমকি স্বরূপ।
 
নেতৃবৃন্দ, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার আহবান জানান। অন্যথায় সাংবাদিক সমিতি  বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সাংবাদিকতার পরিবেশ রক্ষায় কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে।

বিবৃতিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে সংযত ও দায়িত্বশীল আচরণের আহ্বান জানিয়ে সাংবাদিক নেতারা বলেন, আমরা সাংবাদিকতার উপযুক্ত পরিবেশ, তথ্যের অবাধ নিশ্চয়তা এবং প্রকৃত সত্যের উšে§াচন চাই। সেটি নিশ্চিত করতে সাংবাদিকদের ওপর সংগঠিত উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হামলার দৃষ্টান্তমূলক বিচারের আহবান জানাই।

 

 

 

মন্তব্য