শিক্ষা

বিচারের দাবিতে জাবি রোভারদের কর্মবিরতি


জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালনকালে রোভার সদস্যদের উপর হামলা ও শারীরিক লাঞ্ছনার প্রতিবাদে কর্মবিরতি করে মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের রোভার স্কাউট সদস্যরা। পরে প্রশাসনের বিচারের আশ্বাসে বিশ্বাস স্থাপন করে পূণরায় কর্মে যোগদান করেন তারা।

বৃহস্পতিবার ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সকাল ৯টায় কর্মবিরতি করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে মানববন্ধন করে রোভার স্কাউট সদস্যরা। প্রথম দুটি শিফটের পরীক্ষার্থীরা হলে প্রবেশ করার করার পর প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান, সহকারী প্রক্টর মেহেদী ইকবালসহ প্রক্টরিয়াল বডি কর্তৃক দ্রুত বিচারের আশ্বাসে দ্বিতীয় শিফটের শুরু হওয়ার পর (সকাল সাড়ে ১০টায়) পূণরায় কর্মে যোগদান করেন তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ২২ সেপ্টেম্বর ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা চলাকালে দুপুর ২টায় নতুন কলা ভবনে চতুর্থ শিফটের শিক্ষার্থীরা প্রবেশের সময় দর্শন ৪৭ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী রাফিদ অনুষদের মধ্যে প্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত স্কাউট সদস্যরা তাকে বাধা দিলে সে তাদের উপর চড়াও হয়। তখন সে স্কাউট সদস্যদের অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। পরে ভবনে ঢুকতে ব্যর্থ হলে সে তার বন্ধু (একই বিভাগ ও ব্যাচের) কাইয়ুম ও আরিফকে ডেকে আনে। এরপর তারা একই সাথে স্কাউট সদস্যদের উপর হামলা করে এবং পরবর্তীতে তাদেরকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়।

এসময় ঘটনাস্থলে চ্যানেল আই অনলাইনের এর সংবাদকর্মী জার্নালিজম এন্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের ৪৩ তম আবর্তনের শিক্ষার্থী সোহাগ তার মুঠোফোনে ভিডিও ধারণ করতে গেলে তার মোবাইল কেড়ে নেয় এবং তার জামার কলার ধরে তাকেও লাঞ্ছিত করে।

এ ঘটনায় ঐদিনই প্রক্টর বরাবর তারা অভিযোগ দায়ের করে। প্রশাসন কার্যত কোন ভূমিকা নিতে ব্যর্থ হলে গত ২৪ সেপ্টেম্বর রোভার সদস্যরা পূনরায় প্রক্টর বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রেরণ করেন। প্রেরিত ঐ স্মারকলিপিতে অভিযুক্তদের বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে তারা বলেন, ‘এই ঘটনার কারনে রোভার সদস্যরা তাদের নিরাপত্তা হুমকিতে আছে। ২৫ সেপ্টেম্বর দুপুরের পূর্বে উক্ত ঘটনার বিচার না হলে দুপুরের পর থেকে রোভার সদস্যরা তাদের স্বেচ্ছায় শ্রম দেওয়া থেকে বিরত থাকবে।’

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ ঘটনায় ২৫ সেপ্টেম্বর সকালে অভিযুক্তদের ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন। কিন্তু এতে বিচারহীনতা থেকে যাওয়ার আশঙ্কায় ভর্তি পরীক্ষার মধ্যে বিচারের জন্য তারা আজ কর্মবিরতি করে মানববন্ধন অংশ নেয়। পরে প্রক্টরিয়াল বডি কর্তৃক তাদেরকে দ্রুত সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিলে তারা পূনরায় কর্মে যোগদান করেন। একই সাথে তারা আজকে প্রক্টরের সাথে আলোচনায় বাহ্যত কোন সমাধানের সুস্পষ্ট পথ না দেখলে রবিবার থেকে পুনরায় কর্মবিরতির আল্টিমেটাম দেন।

এ বিষয়ে প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, 'অভিযুক্তদের গতকাল সকালে ৭ কর্মদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। আর বিষয়টি নিয়ে রোভার স্কাউট সদস্যদের সাথে আজ বিকেলে আমরা আলোচনা বসবো।'

মন্তব্য