সারা বাংলা

গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ১০

ফরিদপুরের সালথায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুইদল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলার যদুনন্দী ইউনিয়নের খারদিয়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে কয়েকজনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বেশ কয়েকদিন যাবত খারদিয়া গ্রামের আলমগীর মিয়ার সমর্থক ও তার প্রতিপক্ষ টুলু মিয়া-রফিক মোল্যার সমর্থকদের মধ্যে আধিপত্য নিয়ে বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে টুলু মিয়া-রফিক মোল্যার সমর্থকরা আলমগীর মিয়ার সমর্থকদের সাথে দেশীয় অস্ত্র ঢাল-কাতরা, সুঁড়কি-ভেলা, রামদা ও ইটপাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দুই ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে উভয় দলের অন্তত ২০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে হোসেন শেখ (৪৫), জিয়া শেখ (২০), সামচু মোল্যা (৩০), মমিন বিশ্বাস (৩২), সামচেল বিশ্বাস (৩৫), ফজল মাতুব্বর (৩০), রাফিক মিয়া (৩৮)কে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও দুলাল শেখ (৩৮)কে আলফাডাঙ্গা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

সালথা থানার ওসি মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকা শান্ত রাখতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

 

 

 

মন্তব্য