বিনোদন

সালমান খানের যে রেকর্ডগুলো আজও অটুট

 

৫০ পেরিয়ে গেছেন তবুও চির তরুণ। অভিনয় করে যাচ্ছেন দাপটের সঙ্গে। এ কথা বলতেই সবার মনে ভেসে উঠবে সালমান খানের কথাই। তিনি একের পর এক সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন দর্শকদের। কোনোটা ৩০০ কোটির ক্লাবে ঢুকেছে অনায়াসে, আবার কোনোটা বক্স অফিসের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। সালমন খানের এমনই কয়েকটি রেকর্ড আজ পর্যন্ত কেউ ভাঙতেও পারেনি।

সালমনের রেকর্ডের ঝুলিতে রয়েছে সবচেয়ে বেশি ৩০০ কোটি ক্লাবের ছবি। এখনও পর্যন্ত বলিউডে ৩০০ কোটির ক্লাবে ঢুকে পড়েছে যেসব ফিল্ম, তার মধ্যে সালমন খান অভিনীত ছবি রয়েছে তিনটি- বজরঙ্গি ভাইজান, সুলতান ও টাইগার জিন্দা হ্যায়।

বলিউডে যেসব ছবি ১০০ কোটির বেশি ব্যবসা করেছে, তার মধ্যে সালমনের ছবিই বেশি। সবচেয়ে আশ্চর্যজনক যে বিষয়টি তাহলো ২০১০-এর পর থেকে এই চির তরুণ যে কটা ছবি করেছেন তার সবকটিই ১০০ কোটির উপর ব্যবসা করেছে।

সালমনের টানা ১৪টি ছবি ১০০ কোটির ক্লাবে সামিল হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে দাবাং, দাবাং ২, বডিগার্ড, রেডি, এক থা টাইগার, জয় হো, কিক, বজরঙ্গি ভাইজান-এর মতো বক্স অফিস কাঁপানো ছবি। যা বলিউডের ইতিহাসে এক অনন্য নজির।

সালমন শুধু বক্স অফিসে নয়, ইউটিউবেও বাজিমাত করেছেন। তার টাইগার জিন্দা হ্যায় ছবির ‘স্বোয়াগ সে করেঙ্গে সবকা স্বাগত’ গানটি ইউটিউবে ৭৭ কোটি ৩০ লক্ষ বার দেখা হয়েছে। যা একটি রেকর্ড।

২০১৭’র ৬ নভেম্বর ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ এর ট্রেলার রিলিজ হয়। রিলিজ হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ২ কোটি ৯০ লক্ষ বার তা দেখা হয়। ৪ লক্ষ ৮০ হাজার লাইক এবং ২ লক্ষ ৫০ হাজার শেয়ার হওয়ার ফলে ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে রেকর্ড তৈরি করেছে এই ট্রেলার।

বলিউডে সবচেয়ে বেশি ব্লকবাস্টার ফিল্মের রেকর্ড রয়েছে সালমনের দখলে। এখন পর্যন্ত তিনি ১৫টি ব্লকবাস্টার ফিল্ম উপহার দিয়েছেন দর্শকদের। যার মধ্যে ৮টি অলটাইম ব্লকবাস্টার ছবি।

‘হাম আপকে হ্যায় কৌন’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯৪ সালে। বক্স অফিসে দারুন হিট করেছিল ছবিটি। এই ছবিতে সালমনের অভিনয় দর্শকদের মনে দাগ কেটেছিল। ছবিটি মুক্তি পাওয়ার পর ৭ কোটি ৪০ লক্ষ টিকিট বিক্রি হয়েছিল। ২৫ বছর ধরে এই রেকর্ড আজও কোনো ছবি ভাঙতে পারেনি।

তথ্যসূত্র : আনন্দবাজার

মন্তব্য