শিক্ষা

শহীদ মিনারে জড়ো হচ্ছেন ১০ হাজার শিক্ষক

 

গ্রেড পরিবর্তন ও বেতন বৃদ্ধির দাবিতে পূর্বঘোষণা অনুযায়ী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহাসমাবেশে যোগ দিতে জড়ো হচ্ছেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। বুধবার সকাল থেকে শিক্ষকরা সেখানে জড়ো হচ্ছেন। প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক মোহাম্মদ ছামছুদ্দীন মাসুদ জানিয়েছেন প্রায় ১০ হাজার শিক্ষক তাদের সাথে আছেন। আরও শিক্ষক এই সমাবেশে যোগ দিতে পথে আছেন।

তিনি আরও জানান, সারাদেশ থেকে আগত শিক্ষকরা সকাল সাড়ে ৮টা থেকে শহীদ মিনারের দিকে যাত্রা শুরু করলে কার্জন হলের সামনে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় শিক্ষকরা সেখানে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন। প্রায় এক ঘণ্টা অবস্থানের পর পুলিশ সরে গেলে তারা শহীদ মিনারের দিতে যাত্রা করেন।

ছামছুদ্দীন মাসুদের অভিযোগ, তাদের আন্দোলন বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ সমাবেশ থেকে পরবর্তী কর্মসূচি দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এরআগে আন্দোলনকারী ২৫ প্রাথমিক শিক্ষককে মঙ্গলবার কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)।

প্রধান শিক্ষকদের জাতীয় বেতন স্কেলের দশম গ্রেডে ও সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেডে বেতন দেয়ার দাবিতে গত ১৪ অক্টোবর সারা দেশের ৬৫ হাজারের বেশি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করা হয়। পরদিন ১৫ অক্টোবর পালন করা হয় তিন ঘণ্টার কর্মবিরতি। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ক্লাস-পরীক্ষা বাদ রাখেন শিক্ষকরা। ১৬ অক্টোবর এসব বিদ্যালয়ে অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন তারা। এরই অংশ হিসেবে গত ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত অর্ধদিবস কর্মবিরতিতে যান শিক্ষকরা।

দাবি আদায় না হলে সমাপনী পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণাও দিয়ে রেখেছেন আন্দোলনকারী এই শিক্ষকরা।

মন্তব্য