সারা বাংলা

হাত ধুয়ে থানায় প্রবেশ

করোনাভাইরাস নিয়ে সচেতনতায় ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়েছে দিনাজপুরের ফুলবাড়ী থানা পুলিশ। থানার প্রবেশ মুখে বসানো হয়েছে হাত ধোয়ার বেসিন। সেখানে রাখা আছে হ্যান্ড ওয়াশ, পাশে দেয়ালে টানানো হয়েছে একটি নির্দেশিকা। সেখানে উল্লেখ করে দেখানো আছে, হাত ধোয়ার নিয়মাবলী। থানায় আসা ব্যক্তিদের হাত ধোয়ার পর ভেতরে ঢোকার অনুমতি দেয়া হচ্ছে। গত শুক্রবার (২০ মার্চ) থেকে এই কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে।
শনিবার সকাল ১১টায় থানা চত্বরে গিয়ে দেখা যায় এমন দৃশ্য। স্থানীয় ডেকোরেটর থেকে সংগ্রহ করে বসানো হয়েছে অস্থায়ী বেসিন। থানায় দায়িত্বরত পুলিশ, কর্মচারীসহ থানা পুলিশের কাছে সেবা নিতে আসা ব্যক্তিদের হাত ধুয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কাছে যেতে হচ্ছে। এতে সংশ্লিষ্ট সকলেই থাকছেন নিরাপদ ও সুরক্ষায়।  থানায় সেবা নিতে আসা আব্দুল গণি বলেন, তার নিকট আত্মীয় কাজে তিনি থানায় এসেছেন। ওসি স্যারের রুমে যাওয়ার আগেই হাত ধুয়ে নিতে হয়েছে। এতে আমিও সুরক্ষা পেলাম এবং অন্যদেরও সুরক্ষায় রাখলাম। এটা একটা মহতী কাজ করছেন পুলিশ সদস্যরা। এতে করে আগত ব্যক্তিরা নিজেরও সচেতন হচ্ছেন এবং বাসাবাড়িতেও এমন কাজ করে সকলকে সচেতন করে তুলতে সহযোগিতা করবেন।   
থানায় ডিউটি অফিসার ছিলেন থানা পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এসআই) হাজাতুল্লাহ। তিনি বলেন, থানায় পুলিশের কাছে সেবা নিতে আসা সবাইকে হাত ধুয়ে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে। এতে পুলিশসহ আগতরাও অনেকটা নিরাপদ থাকবেন। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত অন্তত দুই’শ নারী-পুরুষ হাত ধুয়ে থানায় ঢুকেছেন। এবং নিজ নিজ কাজ করে চলে যাচ্ছেন।
থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিনই পুলিশের কাছে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ নিয়ে স্থানীয় ব্যক্তিরা থানায় আসেন। করোনাভাইরাস নিয়ে সচেতনতায় তারা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী এমন কার্যক্রম শুরু করেছেন। এই কর্মকাণ্ড অব্যাহত থাকবে। এতে সকলেই সুরক্ষায় থাকবেন।

 

মন্তব্য