আইন শৃংখলা

সকালের সময় 'কোভিড-১৯' আপডেট
# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ 537,465 482,424 8,182
বিশ্ব 105,957,358 2,310,170 77,602,804

পিকে হালদারের দুই সহযোগী গ্রেপ্তার

 

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন, বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে পিকে হালদারের (প্রশান্ত কুমার হালদার) দুই সহযোগীকে (বাবা-মেয়ে) গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- পিকে হালদারের সহযোগী সুকুমার মৃধা ও তার মেয়ে অনিন্দিতা মৃধা।

দুর্নীতি দমন কমিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, ‘পি কে হালদারের এই দুই সহযোগীকে আজ সকাল ১০টা থেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা শুরু হয়, জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়ায় তাদের দুপুরে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।’

গ্রেপ্তারের পর দুপুর সোয়া ২টার দিকে তাদের নিয়ে আদালতের উদ্দেশে রওনা হন অনুসন্ধান কর্মকর্তা সালাউদ্দিন।

এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সুকুমার মৃধা বলেন, ‘পত্রপত্রিকায় যা লেখালেখি হচ্ছে, সেই বিষয়ে পি কে হালদারের কোনো ঘটনার সাথে আমি জড়িত নই। তিনি কেবল আমার ক্লায়েন্ট।’

এর আগে পিকে হালদারের সহযোগী হিসেবে পরিচিত যে ২৫ জন ব্যক্তির দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল উচ্চ আদালত, সে তালিকাতেই নাম ছিল সুকুমার মৃধা ও তার মেয়ে অনিন্দিতা মৃধার।

অর্থপাচারের অভিযোগে কানাডায় পলাতক ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিস লিমিটেডের পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদারের এক হাজার ৫৭ কোটি ৮০ লাখ কোটি ফ্রিজ করা হয়। আর অনুসন্ধান শুরু করে তার ৬২ জন সহযোগীর বিষয়ে। এই ৬২ সহযোগীদের মধ্যে ছিলেন সুকুমার মৃধা ও তার মেয়ে।

অবৈধ সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচারের মামলায় পি কে হালদারের সহযোগী ও ঘনিষ্ঠ বান্ধবী হিসেবে পরিচিত অবন্তিকা বড়ালকে গত ১৩ জানুয়ারি দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে দুদক।

মন্তব্য