সারা বাংলা

সকালের সময় 'কোভিড-১৯' আপডেট
# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ 707,362 597,214 10,081
বিশ্ব 139,771,067 118,808,535 3,001,702
Manarat University

জৈন্তাপুরে ভারতীয় খাসিয়া নাগরিক আটক

সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার সীমান্ত পিলার ১২৮৭-এর ঘিলাতৈল দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং অপহরণের ঘটনায় বিজিবি বাদী হয়ে দুটি মামলা দায়ের করেছে। অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 
বিজিবি ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৫টায় ভারতের জৈন্তিয়া হিলসের জোয়াই জেলার আমলারোম থানার আমলারেম গ্রামের মন মাউরার ছেলে অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটু (৪২) চোরাকারবার করার জন্য সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার ১২৮৭নং ঘিলাতৈল সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে। এ সময় জৈন্তাপুর উপজেলার জৈন্তাপুর ইউনিয়নের বাউরভাগ মল্লিফৌদ গ্রামের তবারক আলীর ছেলে তাজ উদ্দিন (৩৫) এবং বাতেন মিয়াসহ (৩৬) অজ্ঞাত আরো দুই ব্যক্তি চোরাকারবারের লেনদেনের দায়ে তাকে অপহরণ করে।

ভারতীয় নাগরিক অপহরণের সংবাদ পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম দস্তগীর আহমদের নির্দেশনায় কিলো ডিউটি পালনে নিয়োজিত এসআই পার্থ রঞ্জন চক্রবর্তী ও ১৯ বিজিবির জৈন্তাপুর রাজবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার হাবিলদার মো. জুয়েল আকন্দের নেতৃত্বে বিজিবির সদস্যরা ভারতীয় নাগরিক অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটু উপজেলার মল্লিফৌদ গ্রাম হইতে উদ্ধার করে ক্যাম্পে নিয়ে আসেন। পুলিশ-বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়।

বিজিবির অভিযোগ সূত্রে আরো জানা যায়, চোরাকারবার লেনদেনের দায়ে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে যোগাযোগ করে ভারতীয় খাসিয়া নাগরিক অবৈধভাবে সিলেট জেলার জৈন্তাপুর উপজেলার ১২৮৭নং পিলার এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। চেরাকারবারির সাথে তার কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। একপর্যায় চোরাকারবারিরা থাকে তাকে অপহরণ করে উপজেলার মল্লিফৌদ গ্রামে নিয়ে যায়। শনিবার (১৭ এপ্রিল) ১৯ বিজিবির জৈন্তাপুর রাজবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার হাবিলদার (৬১৩৯১) মো. জুয়েল আকন্দ বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন, যার নং ১১, ১২; তারিখ ১৭/০৪/২০২১ইং।
জৈন্তাপুর উপজেলার স্থানীয় বাসিন্দা নুর উদ্দিন, ইব্রাহিম আলী, হানিফ আলী, রুস্তম মিয়া জানান, ১৯ বিজবির আওতাভুক্ত এলাকার ঘিলাতৈল, টিপরাখলা, কমলাবাড়ী, ফুলবাড়ী, গোয়বাড়ী এবং ১৯ বিজিবির লালাখালের আওতায় প্রতিদিন সংশ্লিষ্ট বাহিনীর সদস্যদের সম্মুখে চোরাকারবারিরা বিনা বাধায় ভারতীয় বিড়ি-সিগারেট, মদ-মাদক এবং গরু-মহিষ নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। রহস্যজনক কারণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা প্রতিকার ব্যবস্থা গ্রহণ না করার কারণে সীমান্তের চোরাকারবারিরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। উপজেলার সেরা চোরাকারবার রোড হিসেবে লালাখাল চিহ্নিত হয়ে উঠেছে। 
জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, বিজিবির হাবিলদার মো. জুয়েল আকন্দ বাদী হয়ে ভারতীয় নাগরিক অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটুর অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং তাকে অপহরণের ঘটনায় এজাহার দাখিল করেন। এজাহারগুলো মামলা হিসেবে রেকর্ড করে অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটুকে আদালতের মাধ্যমে হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য