ঢাকা রবিবার, ২২ মে, ২০২২

শ্রীলঙ্কায় থামছেই না জ্বালাও-পোড়াও


সকালের সময় ডেস্ক photo সকালের সময় ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩-৫-২০২২ দুপুর ১০:২

অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিকভাবে ভয়াবহ সংকটে পতিত শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন দেশটির বিরোধী রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির নেতা রানিল বিক্রমাসিংহেকে। দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ করেছেন। তবে এতে দেশটির অচলাবস্থা কাটছে না। বিক্ষোভকারীরা তাদের আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রধানমন্ত্রী পদে রানিল বিক্রমাসিংসেকে নিয়োগ করায় তিনি রাজাপাকসে পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা দেবেন, সে সম্ভাবনা বেশি। রাজপাকসেরা অনুরোধ করলে তাদের নিরাপদে দেশত্যাগের ব্যবস্থাও তিনি করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তবে বিরোধীদের মধ্যে বিক্রমাসিংহের ব্যাপক সমর্থন নেই এবং জনসাধারণও তাকে খুব একটা সমর্থন করে না। এজন্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তার অভিষেক হলেও রাজনৈতিক অচলাবস্থায় খুব একটা প্রভাব পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে না।

বিক্রমাসিংহে কয়েক দশক ধরে শ্রীলঙ্কার রাজনীতিতে জড়িত। এটা প্রধানমন্ত্রী পদে তার ষষ্ঠবার নিয়োগ। তবে কোনোবারই তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মেয়াদ পূর্ণ করতে পারেননি।

এদিকে, প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের পদত্যাগের দাবিতে চাপ ক্রমশ বাড়ছে এবং এই দাবিতে শ্রীলঙ্কায় বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। যদিও তিনি এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে। তিনি আইনশৃঙ্খলা পুনরুদ্ধারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এছাড়া সংসদে এবং নতুন মন্ত্রিসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠের সমর্থন পাবেন এমন যোগ্য ব্যক্তিকে তিনি নতুন প্রধানমন্ত্রী পদে নিয়োগ করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

রানিল বিক্রমাসিংহেকে নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ করার খবরকে বেশিরভাগই অবিশ্বাস্য এবং হতাশাজনক বলে মনে করছেন।

বিক্রমাসিংহে এক সময় রাজনীতিতে চতুর খেলোয়াড় ছিলেন। কিন্তু গত কয়েক বছরে তার প্রতি জনসমর্থন দ্রুত কমেছে। এক সময় ক্ষমতাসীন তার ইউনাইটেড ন্যাশানাল পার্টি গত নির্বাচনে মাত্র একটি সংসদীয় আসন পেতে সক্ষম হয়েছে। ফলে সংসদে তিনিই একমাত্র তার দলের প্রতিনিধি। তার রাজনৈতিক ভরাডুবির অন্যতম কারণ বলে মনে করা হয় বিরোধী দলের সদস্য হওয়ার পরেও রাজাপাকসে পরিবারের সাথে তার ঘনিষ্ঠতা।

অনেকে মনে করেন, রাজাপাকসে ভাইয়েরা যখন ২০১৫ সালের নির্বাচনে ক্ষমতা হারান, তখন বিক্রমাসিংহে তাদের আড়ালে থাকতে সাহায্য করেছিলেন। এখন আবার প্রধানমন্ত্রী পদে নিয়োগ করাকে দেখা হচ্ছে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের পদত্যাগের যে দাবিতে জনগণ তাকে অগ্রাহ্য করে, সেটা ঠেকিয়ে রাখার একটা প্রচেষ্টা হিসেবে। অনেকেই মনে করছেন, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জনসাধারণ যে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করছে, এই নিয়োগ তা বন্ধ করতে উদ্ধত একটা জবাব।

রানিল বিক্রমেসিংহের নিয়োগের পরপই লেখক ও সাংবাদিক অ্যান্ড্রু ফিডেল ফার্নান্ডো এক টুইট বার্তায় বলেন, এই পদক্ষেপ ‘আমাদের দেশে রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে পচনের পরিচয়।’

এদিকে, শ্রীলংকায় দেশজুড়ে কারফিউ বলবৎ রয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালের দিকে কয়েক ঘণ্টার জন্য কারফিউ শিথিল করা হলেও বিকেলে তা পুনর্বহাল করা হয়। দোকানপাট, ব্যবসা-বাণিজ্য ও অফিস বন্ধ রয়েছে।

দেশটিতে খাদ্য ও জ্বালানিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের চরম অভাব ও আকাশছোঁয়া দাম নিয়ে মানুষ হিমশিম খাচ্ছে। কারফিউ শিথিল করার আগেই কলম্বোর বাসিন্দাদের পেট্রোল স্টেশনের বাইরে লাইন দিতে দেখা যায়।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে তার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ভারতে পালিয়ে গেছেন- এমন গুজবের মধ্যেই বৃহস্পতিবার আদালত মাহিন্দা রাজাপাকসে, তার ছেলে এবং ১৫ জন ঘনিষ্ঠ ব্যক্তির দেশত্যাগের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

তাদের দেশত্যাগ নিয়ে এই গুজব ছড়িয়ে পড়েছিল গত বুধবার রাতে। কিন্তু কলম্বোর ভারতীয় হাইকমিশন বলছে, খবরটি সত্য নয়। পদত্যাগের পরপরই মাহিন্দা রাজাপাকশা ত্রিঙ্কোমালির একটি নৌঘাঁটিতে আশ্রয় নেন।

শ্রীলংকার সেনাবাহিনী নিশ্চিত করেছে, মাহিন্দা রাজাপাকসে এখনো ওই নৌ ঘাঁটিতেই আছেন। তিনি সেখান থেকে পালিয়ে যেতে পারেন, এমন আশংকায় অনেক বিক্ষোভকারী ওই নৌ ঘাঁটিতে জড়ো হয়েছেন। সূত্র : বিবিসি

জামান / জামান

পেঁয়াজের কেজি ছয় রুপি, ভারতে কৃষকদের বিক্ষোভ

চীনে সুস্থ লোকজনকে বাধ্য করা হচ্ছে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে

আড়াই কোটি টন শস্য রপ্তানি করতে রাজি রাশিয়া

রাশিয়ায় দেউলিয়া গুগল, কর্মীদের বেতন বন্ধ

বিশ্বে এক দিনে সাড়ে ৭ লক্ষাধিক করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু প্রায় ১৪০০

আফ্রিকার কিছু অংশেও ছড়িয়ে পড়ছে মাঙ্কিপক্স

ইন্দোনেশিয়ার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে তেলের বাজারে স্বস্তির আভাস

আমরা মরতে বসেছি : খাবারের জন্য শ্রীলঙ্কানদের আকুতি

মারিউপোলে পূর্ণ বিজয় ঘোষণা রাশিয়ার

বৈশ্বিক খাদ্য সংকট : একে অপরকে দুষছে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া

ডনবাস অঞ্চল নরকে পরিণত হয়েছে : জেলেনস্কি

২০২১ সালে ইউরোপে প্রবেশ করেছে প্রায় ৭ লাখ অভিবাসন প্রত্যাশী

২৪ ঘণ্টায় করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু কানাডায়, শনাক্ত উত্তর কোরিয়ায়