ঢাকা বৃহষ্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

আজ রাতে পৃথিবী মুগ্ধ হবে আলোর রোশনাই


ফয়েজ রেজা  photo ফয়েজ রেজা
প্রকাশিত: ১৮-১২-২০২২ দুপুর ২:৯

কখনো সখনো হাজার রাতের গল্প বলে একটি রাত। আজকের রাতটি ফুটবল ভক্তদের কাছে তেমনই একটি রাত। আবেগে,  আনন্দে, উচ্ছ্বাসে, আবার বিষাদে জেগে থাকার রাত। পৃথিবীর দিনপঞ্জিকায় বহু ১৮ ডিসেম্বর আসবে। এই আঠারো ডিসেম্বরের রাতে যে আলোর রোশনায় জ্বলবে পৃথিবী, তা দেখবে না আর কোনো ১৮ ডিসেম্বর। আকাশের সব তারাদের চোখ হয়তো আজ থাকবে পৃথিবীর বুকে। 

এক মাসের এক মহাযজ্ঞের সফল সমাপ্তি ঘটবে আজ রাতে। আজ ফাইনালে আর্জেন্টিনা-ফ্রান্স যে দলই জিতুক, বিপুল অঙ্কের অর্থ পুরস্কার পাবে চ্যাম্পিয়ন দল। চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ৪২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, বাংলাদেশি টাকায় ৪২০ কোটি টাকারও বেশি। রানার্স-আপ দল পাবে ৩০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, প্রায় ৩০০ কোটি টাকা। কাতারের লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে বসে আজ রাতের খেলাটি দেখবে পৃথিবীর সকল বর্ণ, ধর্ম ও সংস্কৃতির ৮০ হাজার দর্শক। আর স্টেডিয়ামের বাইরে টেলিভিশনের পর্দায়,  ঘরের কোনে মোবাইল ফোনে, খোলা প্রান্তরে বিশাল পর্দায় আগুনতি মানুষের চোখ আজ থাকবে খেলার দিকে। আজ রাতের খেলায় আপনার প্রিয় দল আর্জেন্টিনা জিতবে নাকি কিক খাবে প্রতিপক্ষ ফ্রান্সের পায়ে?  আর্জেন্টিনা যেমন অপ্রত্যাশিত কিক খেয়েছিল সৌদি আরবের কাছে। ব্রাজিলের যে ভক্তরা দল বদল করে মরক্কোর সাপোর্টার হয়েছিল,  তাদের অনেকেই নাকি আজ ফ্রান্সের পক্ষে বাজি ধরবেন। কয়বার দল বদল করা যায়? থাক সে অবান্তর প্রশ্ন।
আজকের রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাড়া মহল্লার ড্রয়িং রুমগুলো হয়ে যাবে এক একটি ‘প্লে গ্রাউন্ড’। যেখানে বিচরণ করবে উৎকন্ঠা, একই সঙ্গে বইবে উচ্ছ্বাসের বাতাস। ফুটবলের উত্তাপের কাছে আজ রাতে পরাজিত হবে পৌষের শীত।

বিশ্বকাপ ট্রফিটা আজকের রাতের মতো আলো ছড়াবে না আর কোনো রাতে। ফুটবল-বিধাতাও আজকের রাতের খেলাটি দেখবেন উপরে বসে। এবার বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে আর্জেন্টিনা গলাধাক্কা খাওয়ার পর প্রতিটি ম্যাচকে ‘ফাইনাল ম্যাচ’ হিসেবে দেখে আসছে। আর্জেন্টিনার জন্য আজকের রাতটি সেই মাহেন্দ্র রাত, যে রাতের অপেক্ষায় দীর্ঘ ৪ চার বছর ধরে অপেক্ষায় আছে ফ্রান্স।

আজকের রাতেই হয়তো লিওনেল মেসির ফুটবলজীবনের একমাত্র অতৃপ্তিটা ঘুচে যাবে অথবা সোনার কাপটি মেসির জন্য আজীবন থেকে যাবে অধরাই। স্বপ্নের কাপটি হাতের মুঠোয় পুরে মুহুর্মুহু চুম্বনের রাত আজ। মেসির জন্য অনন্য হবে আজ রাতের লুসাইল, নাকি হয়ে যাবে মারাকানা-টু! প্রায় সাড়ে আট বছর আগের যে মারাকানা মেসির জীবনে ‘এত কাছে, তবু এত দূর’-এর আক্ষেপ নিয়ে এসেছিল। যে মারাকানা আর্জেন্টাইনদের মনে নিয়ে এসেছিল অনন্ত দীর্ঘশ্বাস। যে মারাকানা সেদিন কাঁদিয়েছিল মেসিকে। আজকের রাতটিও কি সেই রাত? আর্জেন্টিনার ভক্তরা থাকুন উৎকণ্ঠায়।

লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে আজ রাতে আরও ক্ষীপ্রগতির তরুনদের দেখা যাবে। এটাই যদি মেসির শেষ বিশ্বকাপ হয়, আজ রাতের খেলাটিও তো বিশ্বকাপে মেসির শেষ খেলা।  এ খেলা যারা দেখবেন- তারা তো বিশেষ কারণেই সৌভাগ্যবান। বহুদিন চোখের পর্দায় থাকবে দূরন্ত হরিণের মতো মেসির ছুটে চলার দৃশ্যপট। শেষ বাঁশিতে যদি মেসি ভক্তদের কানে বাজে বিষাদের সুর, তাহলেও এই রাতের গল্পটি হাজার রাতের গল্পকে হার মানাবে।

আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনির কাছে আজকের রাত নিঃসন্দেহে পূর্বের যে কোনো রাতের চেয়ে বেশি প্রার্থনার রাত। আজকের রাতেই ইশ্বরের পায়ে খেলা হবে ফুটবল। পৃথিবীর প্রায় সব মানুেেষর চোখ আজ তাকিয়ে থাকবে সে পায়ের দিকে। আজ রাতে আর্জেন্টিনার প্রয়াত কিংবদন্তী ডিয়াগো ম্যারাডোনার স্বর্গীয় চোখ হয়তো থাকবে কাতারের মাঠে৷ স্টেডিয়ামের সবগুলো হাত যখন করতালি দিবে জোড়ে, মাঠের বাইরের হাতগুলো যখন করতালিতে জেগে উঠবে, সেই হাততালির শব্দে নিশ্চয়ই সতর্ক হবেন ফুটবলের প্রভু। মানুষ আনন্দে ভাসবে আজ রাতে। কাঁদবে পরাজয়ের শোকে। ‘পরাজয়ে ডরে না বীর’ বৃথাই মনে হবে আজ। চোখের জল মানবে না সে বাঁধ। স্বপ্নের কাছ থেকে ফিরে যাওয়ার বেদনায় পরাজিতরা আজ রাতে কাঁদবেই। অ্যামনেস্ট্রি ইন্টারন্যাশনাল কাতার বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে  জোরপূর্বক শ্রম-এর কথা উল্লেখ করে বলেছিল- কাতারে বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রস্তুতিতে মানবাধিকার লঙ্ঘন, এবং অসতর্ক ও অমানবিক কাজের অবস্থার কারণে শত শত অথবা হাজার হাজার অভিবাসী শ্রমিক মৃত্যুবরণ করেছে। এছাড়াও অনেক অভিবাসী শ্রমিককে চাকরি পাওয়ার জন্য অধিক পরিমাণ ‘নিয়োগ ফি’ দিতে হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছিল।

দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকার একটি তদন্তে দাবি করা হয়েছিল যে, অনেক শ্রমিককে খাদ্য ও জল থেকে বঞ্চিত করা হয়েছিল, তাদের পরিচয়পত্র তাদের কাছ থেকে কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। তাদের সময়মতো অথবা একেবারেই বেতন দেওয়া হয়নি এবং তাদের মধ্যে কয়েকজনকে কার্যত ক্রীতদাস করা হয়েছিল। দ্য গার্ডিয়ানের হিসাব অনুযায়ী, এই বিশ্বকাপ আসর অনুষ্ঠিত হওয়ার সময় পর্যন্ত নিরাপত্তা ও অন্যান্য কারণে ৪ হাজার কর্মী মৃত্যুবরণ করেছে। ২০১৫ থেকে ২০২১ সালের মধ্যে, কাতারের সরকার এই আসরের কাজের অবস্থার উন্নতির জন্য নতুন শ্রম সংস্কার গ্রহণ করেছিল, যার মধ্যে সকল শ্রমিকদের জন্য ন্যূনতম মজুরি এবং কাফালা ব্যবস্থা অপসারণ অন্তর্ভুক্ত ছিল।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মতে, গত কয়েক বছরে বিদেশি শ্রমিকদের বসবাস ও কাজের অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। আজ রাতে এসব অভিযোগ ঘেকে চিরমুক্তি পাবে কাতার। সমাপ্তি ঘটবে সকল অভিযোগের। কাতার সরকারের প্রশংসায় কার্নিশ করবে ফিফা আর ফিফার  অফিসিয়াল পেইজে লেখা হবে আরও ২২তম বিশ্বকাপের সফল আয়োজনের চিত্রনাট্য।

আজ রাতে বিশেষ শক্তি প্রকাশ করবে ফ্রান্স। ফিফা বিশ্বকাপের পূর্ববর্তী আসরের চ্যাম্পিয়ন এই দেশ, যারা ২০১৮ আসরের ফাইনালে ক্রোয়েশিয়াকে ৪-২ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করে দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা জয়লাভ করেছিল। ফ্রান্সের ফুটবল ভক্তদের আনন্দ-সুখ আর আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়দের আনন্দ অনুভূতি এক হবে না আজ রাতে।

বাংলাদেশে এই সময়ে যারা ফুটবল ভক্ত, তাদের বেশিরভাগই বয়সে তরুণ। তাদের কাছে মেসি এখন কিংবদন্তী। বাংলাদেশে ডিয়াগো ম্যারাডোনা ছিয়াশির বিশ্বকাপে কিংবদন্তীতে রূপান্তরিত হয়েছিলেন। ফুটবলের এই কিংবদন্তীকে নিয়ে অনেক সমালোচনা ছিলো সেই সময়। ড্রাগে আসক্তি ছিল ম্যারাডোনার। অনেক গণমাধ্যমে খবর আসত- ড্রাগে আসক্তির কারণে পায়ে বেশি জোড় পেতেন ম্যারাডোনা। খেলার মাঠে তাই অধম্য হয়ে উঠতেন তিনি। শেষতক ম্যারাডোনার হাতটি ইশ্বরের হাত হয়ে গিয়েছিল। যে হাতের গোলে বহুবার পৃথিবীজুড়ে সমালোচিত হয়েছে ম্যারাডোনার দল।  আজ রাতে মানুষ বারবার স্মরণ করবে ম্যারাডোনার মতো ফুটবলের কিংবদন্তীদের। 

বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পরপর স্বীকৃতি দিয়েছিলো আর্জেন্টিনা। বাংলাদেশে আর্জেন্টিনার দূতাবাস  ১৯৭৮ সালে বন্ধ হয়ে যায়। সম্প্রতি একটি আলোচনা আবার চাওর হয়েছে বাংলাদেশে  আবারও  দূতাবাস খুলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে আর্জেন্টিনা। আর্জেন্টিনার সাথে হয়তো আবার শুরু হবে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক। ফুটবলের শক্তি তো এখানেও। বাংলাদেশে চিনিসহ নিত্যপণ্যের অন্যতম উৎস ব্রাজিল। আর্জেন্টিনা হয়তো কিছু পণ্যের ভালো উৎস হতে পারে। যদি সত্যি তাই হয়, তাহলে এই শক্তি হবে ফুটবলের ভক্তদের শক্তি। সেই শক্তি হবে আজ রাতের শক্তি। বাংলাদেশে মানুষের জন্য গল্পটি রাতের। পৃথিবীর বহু দেশের মানুষের কাছে গল্পটি দিনের। পৃথিবীর রাত আর দিনকে একভাবে চঞ্চল করে তুলেছে আজকের এই রাত। আজ রাতে পৃথিবীর লাস্যময়ীদের জাগিয়ে রাখবে মেসিরা।

এমএসএম / এমএসএম