ধামইরহাটে বিচারাধীন জমি জবরদখল ও স্থাপনা নির্মাণের চেষ্টা

news paper

এম.এ মালেক, ধামইরহাট

প্রকাশিত: ১৮-৯-২০২৩ বিকাল ৫:৫৯

26Views

 নওগাঁর ধামইরহাটে বিচারাধীন জমির জবরদখল ও স্থাপনা নির্মাণের  চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার বেনিদুয়ার (হরিতকিডাঙ্গা)  মৌজায় ফজলুর রহমানের ভোগ দখলে থাকা ১৬১ নং খতিয়ানে ৬১৪নং দাগের সাড়ে ৮ শতক জমি প্রতিপক্ষের দ্বারা জবর দখলের অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে ফজলুর রহমান বাদী হয়ে ধামইরহাট থানায় অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগ  সূত্রে জানা যায়  নজরুল ইসলাম ওরফে অজলুর স্ত্রী রুমা বেগম বাদী হয়ে  নওগাঁ আদালতে মামলা দায়ের করে। বিজ্ঞ আদালত বিবাদী ফজলুর রহমানের পক্ষে রায় দেন। ওই রায়ের বিপক্ষে রুমা বেগম পুনরায় আপিল করেন। আপিল  মামলার রায় রুমা  বেগমের পক্ষে হয়। ওই মামলার বিরুদ্ধে ফজলুর  রহমান মহামান্য হাইকোর্টে আপিল করেন। মহামান্য হাইকোর্ট উক্ত আপিল মামলার ছয় মাসের স্থিতি অবস্থা প্রদান করেন বলে ফজলুর রহমান দাবি করেন। স্থিতি অবস্থা রাখার  নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও রুমা বেগম ও তার স্বামী রেজাউল করিম ওরফে ফজলু নির্দেশ অমান্য করে আইনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে  উক্ত জমিতে জোরপূর্বক জবরদখল ঘর নির্মাণের চেষ্টা করিতেছে বলে ফজলুর রহমান ধামইরহাট  থানায় অভিযোগ করেন। রুমা বেগমের স্বামী  রেজাউল করিম ওরফে ওজলুর সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন আমাদের জমি,  আদালতের রায় আমাদের পক্ষে হয়েছে।    অভিযোগ তদন্তের দায়িত্বপ্রাপ্ত ধামইরহাট থানার এ এস আই শাহাজান আলী জানান হাইকোর্টের নির্দেশনা মোতাবেক অভিযুক্ত জমিতে  শান্তি শৃঙ্খলা ও স্থিতি অবস্থা  বজায় রাখার স্বার্থে   উভয়পক্ষকে নোটিশ দ্বারা অবহিত করা হয়েছে। 


আরও পড়ুন