উত্তরে নৌকার হেভিওয়েট প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল

news paper

শামীম আহমদ

প্রকাশিত: ২০-১১-২০২৩ রাত ৯:৪৮

109Views

৭ জানুয়ারি ২০২৪ তারিখে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজধানী ঢাকার উত্তরা অঞ্চলের বিখ্যাত জননেতা বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের বীরত্বের প্রতীক ঢাকা-১৮ আসনের যোগ্য প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেনের বিকল্প কাউকে পরবর্তী সংসদ সদস্য ভাবছে না সেখানকার জনগণ। ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের মাধ্যমে যেভাবে বিজয় অর্জন করেছিলেন তোফাজ্জল হোসেন তেমনি উত্তরার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের নিকট থেকে বিজয় অর্জন করবেন এই বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন। ১৯৭১ সালের মুক্তিযোদ্ধাদ অত্যন্ত সাহসিকতার পরিচয় দিয়ে তোফাজ্জল হোসেন বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল। তাই বর্তমান এমপির বিকল্প হিসেবে সমস্ত নেতাকর্মীরা তোফাজ্জল হোসেনকে নিয়ে নতুন স্বপ্ন দেখছে।

ওই এলাকায় এবার মনোনয়ন নিয়ে কোন লড়াই হবে না, কারণ যোগ্যতার বিবেচনায় তোফাজ্জল হোসেনের সমকক্ষ প্রতিযোগি অন্য কেহই নেই। সবদিক বিবেচনায় এবার ঢাকা ১৮ আসনে মনোনয়ন প্রাপ্তির জন্য জনগণের সবটুকু প্রতিপোষণ নিয়েই মাঠে নেমেছেন তোফাজ্জল হোসেন। তাই সর্ব মহলে ঘুরে ফিরে আসছে তোফাজ্জল হোসেনের নাম। সংসদীয় ওই আসনে সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছিলেন হাবিব নামের এক স্থানীয় নেতা। তিনি কিছু দিন দ্বায়িত্ব পালন করা অনেক বিতর্কিত হয়েছেন। সেই বর্তমান এমপিও মনোনয়ন দৌড়ে বিরামহীন ছোটাছুটি করছে। তবে বর্তমান এই সাংসদ এরইমধ্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের অনেক নেতার পজেটিভ দৃষ্টিভঙ্গি হারিয়েছেন বলে কানাঘুষা চলছে। 

উত্তরা-১নং কাউন্সিলর আফসার খান প্রয়াত সাহারা খাতুনের অনুসারীদের নিয়ে শক্তিশালী একটি অবস্থান তৈরির চেষ্টা করছেন। অপরদিকে এক ব্যবসায়ী নিপা গ্রুপের চেয়ারম্যান খসরু চৌধুরীও নিজে আলাদা ভাবে ভোটারদের সাথে পরিচিত হওয়ার চেষ্টা করছেন। তবে গতানুগতিক রাজনৈতিক দ্বারায় অভ্যস্থ না থাকায় মাঠ তৈরিতে যথেষ্ট বেগ পেতে হচ্ছে। তারপরও ব্যবসায়ী সমাজের বিশাল প্রভাব কাজ করছে তাকে ঘিরে। এরইমধ্যে ঢাকা-১৮ আসনে দলীয় মনোনয়ন পেতে নেতারা যে যার মতো দৌড়ঝাপ করছেন। কার হাতে শেষ পর্যন্ত নৌকা ওঠে তা নিয়ে নেতাদের মধ্যে চাপা উত্তেজনাও বিরাজ করছে। 

উপনির্বাচনে হাবিব হাসান এমপি নির্বাচিত হলেও এবার তিনি বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেনের মতো শক্তিশালী প্রার্থীর চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন। একই আসনের নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আফসার উদ্দিন খান এবং নিপা গ্রুপের চেয়ারম্যান ও নগর উত্তর আওয়ামী লীগের শিল্প সম্পাদক খসরু চৌধুরী এই আসনে সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে।

উত্তর নগর আওয়ামী লীগের আরও দুইজন নেতা মনোনয়ন প্রত্যাশী থাকলেও তারা অবশেষে বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেনের পক্ষেই অবস্থান নিতে পারেন বলে মনে করছেন অনেকেই। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নানা সূত্রে জানা গেছে, দলীয় প্রার্থী হিসেবে লাইম লাইটে থাকবে বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন।


আরও পড়ুন